Wellcome to National Portal

Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১০ ফেব্রুয়ারি ২০২১

আমাদের সেবাসমূহ

করোনায় ক্ষতিগ্রস্থ ৩৫ লক্ষ পরিবারকে নগদ অর্থ সহায়তাঃ

মুজিব বর্ষে করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মধ্যে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে মোবাইল ব্যাংকিং পরিসেবার মাধ্যমে নগদ অর্থ সহায়তা প্রদান কার্যক্রমের অংশ হিসেবে আইবাস++ সিস্টেমে একটি পৃথক মডিউল সংযোজন করা হয়েছে এবং ৩৫ লক্ষ উপকারভোগীকে মোবাইল ব্যাংকিং পরিসেবার মাধ্যমে নগদ অর্থ সহায়তা প্রদান করা হয়েছে। অর্থ প্রদানের পূর্বে উপকারভোগীর তথ্য সরকারের বিভিন্ন তথ্য ভান্ডারের সাথে যাচাই করা হয়েছে।

 

ইএফটির মাধ্যমে পেনশন প্রদানঃ

আইবাস++ সফটওয়্যারের পেনশন মডিউল ব্যবহার করে পেনশনারগণকে সরাসরি তাদের ব্যাংক হিসাবে মাসে মাসে পেনশন এবং ভাতাদি প্রদান করা হচ্ছে। পেনশনার ঘরে বসেই মাসে মাসে তার প্রাপ্যতা পেয়ে যাচ্ছেন। প্রায় ৮ লক্ষ ৭৫ হাজার পেনশনভোগীর তথ্য পেনশন ডাটাবেজে অর্ন্তভুক্ত করা হয়েছে । বর্তমানে সকল হিসাবরক্ষণ কার্যালয়ে ইএফটির মাধ্যমে পেনশন প্রদান করা হচ্ছে। ৩,৮১,০০০ পেনশনার ইএফটির মাধ্যমে পেনশন পাচ্ছেন। ২০২০-২১ অর্থ বছরে সকল পেননশনারকে ইএফটির আওতায় আনা হবে। এসপিএফএমএস কর্মসূচি পেনশন মডিউলের উন্নয়ন, বাস্তবায়ন এবং কারিগরি সহায়তা প্রদান করে যাচ্ছে।

 

অনলাইনে বেতন বিল দাখিল এবং ইএফটিতে বেতন প্রদানঃ

সরকারি কর্মকর্তাগণ আইবাস++ ব্যবহার করে দেশের সকল স্থানে অনলাইনে পেপারলেসভাবে বেতন বিল দাখিল করতে পারছেন। বর্তমানে প্রায় দুই লক্ষ  কর্মকর্তা অনলাইনে বেতন বিল দাখিল করছেন। ২০২০-২১ সালে কাগুজে বেতন বিল দাখিল পুরোপুরি বন্ধ করে দেয়া হবে। নন-গেজেটেড কর্মচারিদের অনলাইনে বেতন বিল দাখিল এবং ইএফটিতে বেতন প্রদান সকল মন্ত্রণালয়/বিভাগের সচিবালয়সহ সকল অধিদপ্তরের সদর দপ্তরে চালু করা হয়েছে। ২০২০-২১ অর্থ বছরে এ কার্যক্রম দেশের সকল দপ্তরে বিস্তৃত করা হবে।

 

জাতীয় সঞ্চয় স্কিম ও ডাকঘর সঞ্চয় স্কিম অটোমেশনঃ

জাতীয় সঞ্চয় স্কিমের অনলাইন ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম চালু করা হয়েছে। এটি একটি কেন্দ্রীয় ইন্টারনেট ভিত্তিক সফটওয়্যার, যার মাধ্যমে সকল প্রকার সঞ্চয়পত্র বিক্রয়, লভ্যাংশ প্রদান এবং এ সম্পর্কিত যাবতীয় হিসাবায়ন সম্পন্ন হচ্ছে। সঞ্চয়পত্রের কিস্তির সুদ এবং আসল নগদায়নের অর্থ ইএফটির মাধ্যমে পরিশোধের ব্যবস্হা রয়েছে এবং সঞ্চয়পত্রকে পেপারলেস (scrip-less) করা হয়েছে। এর ফলে যেমন সঞ্চয়পত্র ক্রয়ের সীমা বাস্তবায়ন করা সম্ভব হচ্ছে, ফলে সঞ্চয়পত্রের সুদ বাবদ প্রচুর অর্থ ব্যয় নিয়ন্ত্রণ করা যাচ্ছে, গ্রাহক সেবার মান উন্নয়ন হচ্ছে। এই সেবা বর্তমানে সারাদেশে সঞ্চয়পত্র বিক্রয়কারী সকল আউটলেটে চালু করা হয়েছে। ডাকঘর সঞ্চয় স্কিমকেও অনলাইন করা হয়েছে।

 

স্বায়ত্বশাসিত প্রতিষ্ঠানে আইবাস++ চালুঃ

স্বায়ত্বশাসিত প্রতিষ্ঠানসমূহকে ছাড়কৃত অব্যয়িত অর্থ যেন ট্রেজারির বাইরে পড়ে না থাকে, সে উদ্দেশ্যে নগদ ব্যবস্থাপনাকে শক্তিশালীকরণের লক্ষ্যে স্বায়ত্বশাসিত প্রতিষ্ঠানের জন্য আইবাস++ এ নতুন মডিউল সংযোজন করা হয়েছে। এই মডিউলটি কর্মচারি কল্যাণ বোর্ড, জাতীয় গৃহায়ন কতৃপক্ষ ও মানবসম্পদ উন্নয়ত তহবিল-এ সফলভাবে পাইলটিং এর পর বিদ্যুত বিভাগের সকল প্রকল্প, বাংলাদেশ লোক প্রশাসন প্রশিক্ষণ কেন্দ্র ও পল্লী উন্নয়ন একাডেমি, বগুড়াতে চালু করা হয়েছে।

 

সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনি কার্যক্রমসমূহের সুবিধাভোগীদেরকে ভাতা প্রদানঃ

iBAS++ ব্যবহার করে G2P এর মাধ্যমে সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনি কার্যক্রমসমূহের সুবিধাভোগীদেরকে ভাতা প্রদানের কাজ এগিয়ে যাচ্ছে। এ পর্যন্ত ৫০ লক্ষ্যর বেশী উপকারভোগীকে EFT এর মাধ্যমে ভাতা প্রদান করা হয়েছে।

 

অনলাইনে চালান জমাদানঃ

ঘরে বসে চালান জমাদানের উদ্দেশ্যে অটোমেটেড চালান ও ই-চালান বাতায়ন চালু করা হয়েছে। এর ফলে একদিকে যেমন নাগরিকগণ সহজেই রাষ্ট্রীয় কোষাগারে অর্থ জমা দিতে পারবেন, ফলশ্রুতিতে সরকারের রাজস্ব আহরণ বৃদ্ধি পাবে, তেমনি স্বচ্ছতাও বৃদ্ধি পাবে। 

 


Share with :

Facebook Facebook